হাওর কবি জীবন কৃষ্ণ সরকারের কবিতা “আমরা হাওরবাসী”

0
222
smart

আমরা হাওরবাসী

হাওর পাড়ে বাড়ী মোদের
হাওর পাড়ে বাসা
হাওর পাড়েই জন্ম মোদের
মনে কতো আশা!
বাড়ী করবো,গাড়ী করবো
হবো কতো ধনী,
ধনী হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই
সোনার ফসল বুনি।
বৈশাখ মাসে বজ্রপাতের
শব্দ যখন শুনি
চারিদিকে একি! আওয়াজ
কান্না-কাটির ধ্বনি।
ফসল কাটতে কাঁচি নিয়ে
ক্ষেতে যখন যাই
চারিদিকে জাঙ্গাল ভাঙ্গার
ধ্বনি শুনতে পাই।
একসময় সব তলিয়ে যায়
জাঙ্গাল ভাঙ্গার জলে
এভাবেতেই সুখে, দুখে
মোদের জীবন চলে।
দু-মুটো ধান কাটতে পারলেই
আমরা কত খুশি!
আমরা হাওরবাসীরে ভাই
আমরা হাওরবাসী।

বর্ষাকালে বন্যার জলে
বাড়িতে দেয় হানা
কতো বাড়ি,ঘর তলিয়ে যায়
যায়না তাহা গোনা
বছর বছর ভোট দিয়ে যায়
এই হাওরের মানুষ
নির্বাচনের নাম শুনিলেই
হয়ে যায় তারা বেহুঁশ
কি পেল আর কি দিল ভাই
তার নেই কোন হিসাব
সেই সুযোগেই কতো কোকিলরা
হয়েছে বাবু,সাব।
বন্যার পরে বাবু,সাবেরা
ঘুরে দেখলেই খুশি!
আমরা হাওরবাসী রে ভাই
আমরা হাওরবাসী।

কবিতায় আর কি লিখবো ভাই
মোদের দুঃখ কথা
যত বলি ততই বাড়ে
কেবল মনের ব্যাথা।
স্বপ্ন নিয়ে জন্ম মোদের
স্বপ্ন নিয়েই মরণ
এভাবেতেই চলছি মোরা
চলছি আজীবন।
না জানি ভাই আর কতোদিন
চলবো এমন করে,
সুখ,দুঃখকেই সঙ্গী করে
চলছি বছর ধরে।
ভাগ্য দোষেই কষ্ট মোদের
কাউকে নাহি দোষী
আমরা হাওরবাসীরে ভাই
আমরা হাওরবাসী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে