পূজার নির্দেশনা

0
30

পূজায় ও প্রতিমা তৈরিতে শালীনতা বজায় রাখুন। (লেখাটি কাউকে আঘাত দেবার জন্য নয়)

১। মা হ‌চ্ছেন জগৎজ্জননী। মা‌য়ের প্রতিমা যেন কোন রাজনৈতিক নারী, নর্তকি বা স্টার জলসা, জি বাংলা সিরিয়ালের না‌য়িকার মত না হয়।

২। পূজায় আরতির নামে ডি‌জে বাজা‌নো বন্ধ করা উ‌চিৎ।

৩। পূজার প্রসাদ সাত্বিক হতে হবে।

৪। প্র‌তি‌টি ম‌ন্দি‌রে ভ‌ক্তিমূলক গান ও ধর্মীয় আ‌লোচনার পাশাপাশি শিশু, কিশোর, তরুণদের মাঝে ধর্মিয় কুইজ প্রতিযোগিতা এবং পুরষ্কার প্রদানের আয়োজন করা যেতে পারে।

৫। স্বল্প টাকায়ও মাতৃরূ‌পি প্র‌তিমা তৈ‌রি করা যায়। অ‌তি র‌ঞ্জিত করার জন্য মা‌টি দি‌য়ে শা‌ড়ি প‌রিধান ভা‌লো দেখায় না। তাই কাপড় প‌রিধান করাই শ্রেয়।

৬। প্র‌তিমা পূর্ণ তৈরী না হওয়া পর্যন্ত ভি‌ডিও কিংবা ফ‌টো তু‌লে fb তে এ প্রদর্শন করা উচিত না।

৭। পূজায় কোন প্রকার মদ পান করা যা‌বেনা। নেশা আসক্ত ব্য‌ক্তি‌দের মন্ড‌পের বা‌হি‌রে রাখ‌তে হ‌বে।

৮। সকল হিন্দু/সনাতনী মা, বোন‌দের যা‌তে পূজা মন্ড‌পে কেউ উত্তক্ত না ক‌রে সে দি‌কে সক‌লের দৃ‌ষ্টি রাখতে হবে ।

৯। আমা‌দের মা, বোন‌দের‌কেও শালীনতা বজায় রে‌খে শাড়ী/‌পোশাক প‌রিধান কর‌তে হ‌বে।

১০। পূজায় ঢা‌কের ব্যবস্থা অবশ্যই কর‌তে হ‌বে। কারণ, আরতীর সময় ডি‌জে বা হি‌ন্দিগান না বা‌জি‌য়ে অবশ্যই ঢাক বাজানো উচিত।

১১। নামাজের সময় কোন সাউন্ড সিস্টেম বা ঢাক ঢোল বাজিয়ে উগ্রতা প্রকাশ করা যাবেনা।কারণ ধর্ম এবং উগ্রতা এক সাথে চলতে পারেনা।

হে ঈশ্বর সবাইকে বোঝার সু বুদ্ধি দিন🙏🙏

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে